যারা ই-মেল মার্কেটিং শব্দটির সঙ্গে পরিচিত হয়েছেন। তবে এখনও অনেকে হয়তো এই ব্যাপারটি কী তা বুঝে উঠতে পারেননি। আপনার ই-মেল অ্যাকাউন্টে রোজ কত মেল আসে। তার মধ্যে আপনার দরকারি মেলের সংখ্যা কত? আপনি হাতে গুনে বলে দিতে পারবেন। বাকি মেলগুলো সবই ব্যবসায়িক। লিড জেনারেট, অথবা বিজনেজ প্রমোশন, সব ই-মেল আপনার আসে এগুলোই ই-মেল মার্কেটিং।আপনি ভাবতে পারেন Email Marketing ভবিষ্যত কী? Email Marketing একমাত্র রাস্তা যা দিয়ে আপনার গ্রাহক বা পাঠক, উভয়কেই আপনার ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত করে রাখা যায়।

ব্যবসায় ই-মেল মার্কেটিংয়ের কতটা গুরুত্ব ?

কী কনটেন্টের জন্য ই-মেল মার্কেটিং করবেন তার প্ল্যান তৈরি করুন। এরপর ই-মেল লিস্ট খুব জরুরি। ই-মেল এমন একটা জিনি যা সবাই ব্যবহার করে। একটি সমীক্ষা অনুযায়ী, গোটা বিশ্বে বর্তমানে ৪ বিলিয়ন মানুষের ই-মেলে অ্যাকাউন্ট রয়েছে। এছাড়া গোটা বিশ্বে প্রতি মাসে ১.৫০ মিলিয়ন ই-মেল ব্যবসার জন্য পাঠানো হয়। সুতরাং এখন থেকে ই-মেল শুরু না করলে আপনার ব্যবসা পিছিয়ে পড়তে পারে। ই-মেল বিজ্ঞাপনের যে কনটেন্ট পাঠাবেন তা আকর্ষণীয় এবং আপনার প্রোডাক্টের সঙ্গে যুক্তিসম্পন্ন হতে হবে। লেখা, ছবি এবং ভিডিও যেটাই ব্যবহার করে থাকুন না কেন তা যেন সংক্ষিপ্ত হয়।ভবিষ্যতে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে কত রকম স্ট্র্যাটেজি আসবে বলা মুশকিল। কিন্তু, ই-মেল মার্কেটিং Email Marketing কিন্তু রয়ে যাবে। মানুষের চাহিদামতো, পছন্দ মতো প্রোডাক্ট গ্রাহকদের সামনে তুলে ধরতে পারবেন তত আপনার ব্যবসা বাড়বে। যেমন আপনি ভালো ফোন কিনতে চাইছেন। বিভিন্ন ই-কমার্স সাইটে ফোন দেখছেন। কিন্তু ই-মেলে যদি ভর্তি ক্রেডিট কার্ড নিয়ে অফারের মেল আসে তা আপনি খুলেও দেখবেন না। তেমনই যদি কোনও সংস্থা ফোনে অফার দিয়ে আপনাকে মেল করে তাহলে আপনি সেই মেল খুলে ক্লিক করে মেন পেজে গিয়ে চেক করবেন। এক্ষেত্রে আপনার কাস্টমার লিস্ট মেনটেইন করা খুব জরুরি।গ্রাহকদের অটোমেটিক ই-মেল পাঠালে আপনার ব্যবসা অনেকটা প্রচার পাবে। যেমন আপনার ওয়াবসাইটে ঢুকে কোনও গ্রাহক কিছু না কিনে বেরিয়ে গেলে বা কেউ যদি বেশিক্ষণ আপনার ওয়েবসাইটে না থাকে তাহলে আপনি তঁকে ই-মেল পাঠিয়ে তাঁর না দেখা জিনিসগুলো সম্পর্কে বলতে পারেন। এভাবে আপনি আপনার পরবর্তী প্রোডাক্টগুলো সম্পর্কে মার্কেটিংও করে ফেলতে পারবেন।

Avatar

By Mahfuz

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *