➡ প্রযুক্তির এই উন্নত যুগে আমাদের সকলেরই ওয়েব হোস্টিং সম্পর্কে কমবেশি জ্ঞান রাখা উচিৎ। শুধু হোস্টিং ই নয় এমন আরো বেশ কিছু বিষয় রয়েছে যেগুলো সম্পর্কে সকালেরই কম বেশি জানা উচিৎ, তবে সেগুলো নিয়ে আগামীতে কথা হবে। এখন চলে যায় মূল বিষয়ে।

➡️ হোস্টিং জিনিসটাকে যদি সহজ ভাষায় বলি তাহলে এটি হলো একটি স্টোরেজ। স্টোরেজের কাজ জানেন কি? স্টোরেজের কাজ হলো ডেটা সংরক্ষণ করা, (যেমনঃ লেখা, ছবি, ভিডিও, অডিও, জিপ ইত্যাদি)। আসা করি হোস্টিং এর মূল বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন যে এটি একটি স্টোরেজ।

➡️ চলুন আরেকটু গভীরে প্রবেশ করি। আপনি যখন কোনো ওয়েবসাইটে ভিজিট করেন তখন সেখানে যেসব তথ্যগুলো লোড হয়, সেগুলো কোথায় জমা থাকে? সেগুলো নিজ নিজ ওয়েব হোস্টিং এর FTP তে সংরক্ষণ থাকে এবং সেখানে প্রবেশ করার পথ অর্থাৎ একটি ওয়েব এড্রেস (ডোমেইন) (www.example.com) সেট করা থাকে, যার মাধ্যমে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করলে উক্ত FTP তে থাকা ডেটাগুলো লোড হয়।

➡️ সেখানে যে ডেটাগুলো লোড হচ্ছে, তা কোনো না কোনো স্টোরোজে সংরক্ষণ আছে এবং সেই স্টোরেজটি এমন একটি স্টোরেজ যা ২৪ঘন্টা ৩৬৫দিন অবিরাম ইন্টারনেটের সাথে যুক্ত হয়ে থাকে। তার সাথে থাকে বিশেষ বিশেষ কিছু সফটওয়্যার ও হার্ডওয়্যার, সবগুলো মিলে তৈরি হয় সার্ভার।

➡️ এবার, আপনার ওয়েবসাইটের জন্য উক্ত ভার্চুয়াল স্টোরেজ যদি ব্যবহার করতে চান, সেক্ষেত্রে ওয়েব হোস্টিং প্রোভাইডার থেকে নির্দিষ্ট স্টোরেজ নির্দিষ্ট সময়ের জন্য নির্দিষ্ট টাকা দিয়ে ক্রয় করতে হবে।

ডোমেইন, হোস্টিং, বাল্ক/মাস্কিং এসএমএস, সফটওয়্যার ডেভালোপমেন্ট, ওয়েব ডেভালোপমেন্ট কিংবা গ্রাফিক্স ডিজাইন যেকোনো বিষয়ে হেল্প/পরিষেবা লাগলে আমাকে জানাতে পারেন। আমি আমার এই স্বল্প জ্ঞান ও দক্ষতা থেকে যথাসাধ্য সাহায্য করবো, ইনশাআল্লাহ।

Email: mohit@mdn.com.bd || Twitter || Facebook || Instagram

Mohit

By Mohit

Life should increasable.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *